র‌্যাব-পুলিশ অস্ত্র নিয়ে ঘুরতে থাকলে মানুষ এবাদত করবে কীভাবে : জুনায়েদ বাবুনগরী


জাগো প্রহরী ডেস্ক : 
হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, লকডাউন দিয়ে মাদ্রাসা বন্ধ করা যাবে না। মসজিদের জামাত বন্ধ করা যাবে না, তারাবির নামাজ ও জুমা চলবে। এগুলো বন্ধ করা যাবে না।  

মাদ্রাসায় পুলিশ, র‌্যাব দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, মানুষকে শান্তিতে রোজা পালন করতে দিতে হবে।

এভাবে র‌্যাব, পুলিশ অস্ত্র নিয়ে ঘুরতে থাকলে মানুষ এবাদত কীভাবে করবে?

রবিবার (১১ এপ্রিল) বিকালে চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে অনুষ্ঠিত জরুরি বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব বলেন তিনি।

বৈঠক থেকে হেফাজত নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা ও গ্রেফতার নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি করা হয়। এছাড়া আগামী ২৯ মে হাটহাজারী মাদ্রাসায় ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলন হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।  

সভা শেষে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, নির্দোষ মানুষকে হয়রানি সহ্য করা হবে না।

সরকারকে এগুলো বন্ধ করতে হবে। এভাবে ধরপাকড় চললে আবারও উত্তেজনার সৃষ্টি হবে। এর জন্য আমরা দায়ী নই।  

আমাদের আয়ের উৎস জনগণের টাকা। সরকারি কোনো দান, অনুদান আমরা নেই না।  

হেফাজতের উদ্দেশ্য সরকার পতন নয় দাবি করে বাবুনগরী বলেন, হেফাজতে ইসলাম ঈমান আকিদাভিত্তিক সংগঠন। যারা ইসলামের বিরুদ্ধে বলবে হেফাজত তাদের বিরুদ্ধে যাবে। এ সরকার আরও ২০০ বছর থাকলেও আমাদের আপত্তি নাই, তবে ইসলামের বিরুদ্ধে এখানে কিছু চলবে না।  

আলেম ও ছাত্রদের নামে মিথ্য মামলা দায়ের করা হচ্ছে দাবি করে তিনি বলেন, এগুলো বন্ধ করতে হবে। যা দায়ের হয়েছে নিঃশর্তে প্রত্যাহার করতে হবে।

জাগো প্রহরী/এফজে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ