ভ্রাম্যমাণ আদালতে গ্রেপ্তার ছাত্র ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক


জাগো প্রহরী ডেস্ক :
বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক দীপক শীলকে তিন মাসের কারদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সড়ক আইনের ৬৬ ধারায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর বকশীবাজার মোড়ে এই সাজা দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ফয়েজ উল্লাহ বলেন, মোটরসাইকেল চালিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পথে রাজধানীর বকসিবাজার মোড় অতিক্রম করার সময় তার পথরোধ করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ সময় আরো কয়েকটি মোটরসাইকেল বিনাবাধায় ভ্রাম্যমাণ আদলতের চৌকি অতিক্রম করলে এ নিয়ে প্রশ্ন করেন দীপক শীল। এ সময় তার রাজনৈতিক পরিচয় জানতে পেরে মোটরযানের কাগজপত্র দেখানোর সুযোগ না দিয়েই হয়রানিমূলক, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা মামলায় তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।  

এদিকে দীপক শীলকে গ্রেপ্তার করায় নিন্দা জানিয়ে মুক্তির দাবি জানিয়েছে  বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম।  

বিবৃতিতে অবিলম্বে দীপক শীলের মুক্তি দাবি করে বলেন, হামলা, মামলা, জুলুম, গ্রেপ্তার করে চলমান আন্দোলন রুখে দেওয়া যাবে না।

জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ