‘কাদিয়ানিদের অমুসলিম ঘোষণায় গড়িমসি করলে উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য সরকার দায়ী হবে’


জাগো প্রহরী :
সাভারে (ঢাকা) আকীদায়ে খতমে নবুওয়াত ও আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী রহ. এর জীবন ও চিন্তাধারা শীর্ষক আলোচনা সভা ও দোয়া জামিয়া সিদ্দীকিয়া যাদুরচর মাদরাসা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মধুপুরের পীর আল্লামা আব্দুল হামিদ বলেন, কাদিয়ানিদের অমুসলিম ঘোষণা করতে গড়িমসি করলে কঠিন পরিস্থিতির দায়ভার সরকারের বহণ করতে হবে।

গত বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বাদ আসর খতমে নবুওয়াত সংরক্ষণ কমিটি ঢাকা জেলা উত্তর কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খতমে নবুওয়াত সংরক্ষণ কমিটি বাংলাদেশ- এর আমীর আল্লামা আব্দুল হামিদ পীর সাহেব মধুপুর। সংগঠনের ঢাকা জেলা উত্তরের সভাপতি মুফতি মাহবুবুর রহমান নবাবগঞ্জীর সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি জেনারেল মুফতি নাজমুল হাসান বিন নূরীর সঞ্চালনায় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বারিধারা মাদরাসার শাইখুল হাদীস আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক, জামিয়াতুন নূর আল কাসেমীর প্রিন্সিপাল মাওলানা নাজমুল হাসান, জামিয়া খাতামুন্নাবিয়্যীনের প্রিন্সিপাল শাইখুল হাদীস মাওলানা আশিকুর রহমান কাসেমী, ইত্তিহাদুল উলামা সাভার উপজেলার আমীর মাওলানা আব্দুল মান্নান পাটোয়ারী, ব্যাংক কলোনি মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আবদুল্লাহ, জামিয়া সিদ্দীকিয়া যাদুরচর মাদরাসার প্রিন্সিপাল হাফেজ মাওলানা আলী আকবর কাসেমী, শাইখুল হাদীস মুফতি হামেদ জহিরী, সুলতানুল ওয়ায়েজীন খালিদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, বলিয়ারপুর মাদরাসার প্রিন্সিপাল মুফতি আবদুর রাজ্জাক কাসেমী, জামিয়াতু ইব্রাহীমের প্রিন্সিপাল মুফতি জাহিদুল ইসলাম কাসেমী, জামি’আ মদীনাতুল উলূম আমিন বাজারের প্রিন্সিপাল মাওলানা সালীমুল্লাহ, ভাইস প্রিন্সিপাল মুফতী আব্দুল বারী, হারুনিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল মুফতি আলী আশরাফ তৈয়ব, বলিয়ারপুর মাদরাসার ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুর রশিদ, সংগঠনের ঢাকা জেলা উত্তরের সিনিয়র সহসভাপতি মুফতি শাহেদ জহিরী, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা শফিকুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মুফতি আবদুল্লাহ ফিরোজী, দফতর সম্পাদক মুফতি গাজী সিদ্দীকুর রহমান, আহসানুল উলূম মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, মুফতি ফয়জুর রহমান সাদেকী, মুফতি মাসউদুর রহমান আইয়ুবী, মাওলানা শিহাবুদ্দীন, মুফতি মাহমুদ হাসান হাবিবী, মুফতি আব্দুস সামাদ, মুফতি মারজানুল বারী, মাওলানা জাকির হোসাইন, হাফেজ কাজী আবু তাহের সাভারী সহ বিপুল সংখ্যক উলামায়ে কেরাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মধুপুরের পীর আল্লামা আব্দুল হামিদ বলেন, অবিলম্বে কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয় ভাবে অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে। সরকার এ ব্যাপারে গড়িমসি করলে উদ্ভূত পরিস্থিতির দায়ভার তাদেরকেই নিতে হবে। তিনি আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর স্মৃতিচারণ করে বলেন, তিনি ছিলেন আকাবিরে দেওবন্দের উজ্জ্বল নক্ষত্র। তিনি তাদের ইলম ও মারেফাতের মুকুট অর্জন করতে পেরেছিলেন।

তিনি দরসে হাদিসের মসনদে জীবন্ত কিংবদন্তি ও আত্মশুদ্ধির মেহনতে জগত বিখ্যাত ছিলেন। শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত বাতিল বিরোধী আন্দোলন করে গেছেন। খতমে নবুওয়াতের রাজসিংহাসনের মর্যাদা রক্ষায় তিনি ছিলেন অকুতোভয় এক সিপাহসালার। হেফাজত, বেফাক, হাইয়াতুল উলইয়া সহ কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয় ভাবে অমুসলিম ঘোষণার ব্যাপারে তার রেখে যাওয়া মিশন এগিয়ে নেওয়ার দায়িত্ব আমাদের সবার।

আজকে আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী রহ. না থাকলেও তার আদর্শ আমাদের সামনে আছে। সুতরাং সেই আদর্শের উপর অটল অবিচল থেকে আগামী দিনেও ঐক্যবদ্ধভাবে ইসলাম ও মুসলমানদের কল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করতে হবে। আল্লাহ পাক তাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করুন, আমিন৷

তিনি খতমে নবুওয়ত সংরক্ষণ কমিটি বাংলাদেশ-এর উদ্যোগে আয়োজিত আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি মুন্সীগন্জের কুঁচিয়ামোড়া কলেজ ময়দানে অনুষ্ঠিতব্য খতমে নবুওয়াত মহাসম্মেলন সফলে সবার প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।

জাগো প্রহরী/এফজে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য