ধর্মভিত্তিক ৭ দলের উদ্যোগে গঠিত হচ্ছে ‘জাতীয় সংহতি মঞ্চ’


জাগো প্রহরী :
ধর্মীয় ও সমমনা ৭টি দল ও সংগঠনের উদ্যোগে ‘জাতীয় সংহতি মঞ্চ’ নামে নতুন একটি জোট গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এটির আহবায়ক হচ্ছেন-বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির (একাংশ) নির্বাহী সভাপতি মাওলানা একেএম আশরাফুল হক।

বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় এ উদ্যোগের কথা জানানো হয়। শিগগিরই জোটটির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ও কার্যক্রম শুরু হবে বলে বলে গণমাধ্যমকে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

মাওলানা একেএম আশরাফুল হকের সভাপতিত্বে ‘দেশে বিরাজমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় ১২ দফা দাবিতে ঐক্যমত পোষণ করেন ৭টি দলের নেতারা।

দাবিগুলো হচ্ছে-অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করা; স্বাধীন বিচারব্যবস্থা নিশ্চিত করা; সমাজ, রাষ্ট্র ও প্রশাসন দুর্নীতিমুক্ত করা; জাতীয় জীবনে ইসলামী মূল্যবোধকে গুরুত্ব দেয়া; দেশে সব ধরণের উগ্রতা, অসহিষ্ণুতা ও সন্ত্রাস বন্ধ করা; ইসলামের সাথে সাংঘর্ষিক সব আইন ও সাংবিধানিক ধারা বাতিল করা; ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় ইসলামবিরোধিতা বন্ধ করা; রাষ্ট্রের সব বিভাগে ইসলামের বিরুদ্ধাচারণের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা; সুদমুক্ত অর্থব্যবস্থা চালু করা; রাজনৈতিক কার্যক্রমের বিধি-নিষেধ ও প্রতিবন্ধকতা বন্ধ করা; বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বিদেশিদের হস্তক্ষেপ বন্ধ করা এবং সৎ, যোগ্য ও দেশপ্রেমিকদের মধ্যে ঐক্য স্থাপন করা।

মতবিনিময় সভায় নেজামে ইসলাম পার্টি ছাড়াও ৭টি দলের মধ্যে বাংলাদেশ পিপলস পার্টি, প্যান ইসলামিক মুভমেন্ট, বাংলাদেশ ইসলামিক ডেমোক্রেটিক পার্টি, বিশ্ব মুসলিম পরিষদ, জাতীয় ওলামা-মাশায়েখ পরিষদ এবং বাংলাদেশ আইডিয়েল পার্টির সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা একেএম আশরাফুল হক বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা ৭টি দল একত্রিত হলেও নতুন এ জোটে সৎ, যোগ্য ও দেশপ্রেমিক যে কোন দল এতে যুক্ত হতে পারবে। জোটের প্রস্তাবিত নাম ‘জাতীয় সংহতি মঞ্চ’। শিগগিরই বৃহৎ পরিসরে বৈঠক করে এটির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হবে।

জাগো প্রহরী/এফজে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ