৩০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে রাতের আঁধারে ভারতে পাড়ি জমালো প্রদীপ চন্দ্র


জাগো প্রহরী : জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে প্রদীপ চন্দ্র ভৌমিক নামে এক মুদি দোকানদার হাওলাতের কথা বলে ৩০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে স্ত্রী পুত্র পরিবারসহ রাতের আঁধারে ভারতে পাড়ি জমিয়েছে।

এ মর্মে গত ৬ ডিসেম্বর সরিষাবাড়ী থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করেছে সরিষাবাড়ী পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের ষ্ট্যাম্প ভেন্ডার সোহেল রানা।

জানা গেছে, সরিষাবাড়ী আরাম নগর বাজারের প্রদীপ চন্দ্র ভৌমিক বাজার সংলগ্ন মন্ডল মোড়ে কাউন্সিলর সোহেল রানার আবাসিক ভবনের একটি রুম রাস্তা সংলগ্ন একটি দোকান নভেম্বর/২০১৮ ইং সন থেকে ভাড়া নেয়। স্থানীয় ৫০ থেকে ৬০ জন লোকের নিকট থেকে প্রদীপ চন্দ্র ভৌমিক দোকানে মালামাল উঠানোর কথা বলে ২৫ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা ধার (কর্জ) নেয়। ব্যবসার পাশাপাশি প্রদীপ চন্দ্র ভৌমিক সুদের ব্যবসার সাথেও জড়িত। এক পর্যায়ে গত ৫ নভেম্বর/২০ গভীর রাতে সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে দোকানের যাবতীয় মালামাল, আসবাবপত্র ও বিভিন্ন জনের ৩০ লক্ষ টাকা নিয়ে সরিষাবাড়ী থেকে চলে যায়। দোকান ও বাসাবাড়ী মালিক কাউন্সিলর সোহেল রানা সহ এলাকার লোকজন সেই থেকে তার খোঁজে আছে।

এদিকে সরিষাবাড়ীর আরাম নগর বাজারসহ সাতপোয়া গ্রামের প্রায় অর্ধশত লোক প্রদীপ চন্দ্রকে টাকা হাওলাৎ (ধার) দিয়ে তাদের মাথায় হাত পড়ায় দিশেহারা অনেকেই। বাড়ী ও দোকান মালিক কাউন্সিলর সোহেল রানা বলেন, প্রথম দিকে আমার ভাড়াটিয়া প্রদীপ চন্দ্র ভৌমিক সবার সাথে আন্তরিকতার সহিত কাজকর্ম ও চলাফেরা করত। এমন ভাবে যে সে সবার সাথে প্রতারনা করে ধোকা দিয়ে চলে যাবে এমনটি আশা কেউ করেনি। আমি নিজেও তার কাছে বাসা ও দোকান ভাড়া ছাড়াও ৫০ হাজার টাকা পাওনা আছি।

জাগো প্রহরী/এফজে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য