‘মাফ চেয়ে সাকিব ভুল করেছেন, আমি অতীতেও পূজা উদ্বোধন করেছি, ভবিষ্যতেও করবো’


জাগো প্রহরী :
পূজা উদ্বোধন নিয়ে লাইভে এসে ক্ষমা চেয়ে সাকিব আল হাসান ভুল করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি, শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক। তিনি বলেন, আমি অতীতে পূজা উদ্বোধন করেছি, এজন্য আমি গর্বিত এবং আমি ভবিষ্যতেও পূজা উদ্বোধন করবো বলে মন্তব্য করেন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি, শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) রাতে ‘সাকিবের পূজায় যাওয়া নিয়ে বিতর্ক কেন?’  শিরোনামে ডিবিসি নিউজের রাজকাহন অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন তিনি।

এসময় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, কারওয়ান বাজার আম্বরশাহ শাহী জামে মসজিদের খতীব, মাওলানা মাজহারুল ইসলাম ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের গেম ডেভেলপমেন্ট চেয়ারম্যান, খালেদ মাহমুদ সুজন।

অনুষ্ঠানে কথার এক পর্যায়ে শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক সাকিবের পূজা উদ্বোধনকে একজন ‘প্রকৃত মুসলমানে’র কাজ বলে দাবি করেন। মাত্র ২০% ধর্মান্ধ, ধর্মব্যবসায়ী মৌলবাদের কথায় সাকিব আল হাসান ক্ষমা চেয়ে দেশের ৮০ ভাগ মুসলমানকে ব্যথিত করেছেন দাবি করে এই সাবেক বিচারপতি বলেন, এরা পাকিস্তানের পরাজিত অপশক্তি, এদের দেশ থেকে বের করে দেওয়া হোক।

শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক বলেন, সাকিবকে হত্যার হুমকি দেওয়ার পর আমরা তার পক্ষ নিয়ে কথা বলার জন্য তৈরি হচ্ছিলাম, এর মধ্যেই সাকিব ক্ষমা চেয়ে আমাদের হতাশ করেছে। তিনি বলেন, সাকিব পূজা উদ্বোধন করে ভুল করেননি, ক্ষমা চেয়েই ভুল করেছেন।

এসময় তিনি শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের কথার জের ধরে দেশের আলেম সমাজকে ঘাড় মটকিয়ে ও ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বঙ্গোপসাগরে ফেলে দেওয়ার কথা বলেন। এছাড়া অনুষ্ঠানে তিনি নিজে পূজা উদ্বোধন করার বিষয়টিকে বেশ কয়েকবার গর্বের সাথে উল্লেখ করেন এবং পূজা উদ্বোধনকে ‘প্রকৃত মুসলমানে’র কাজ বলে উল্লেখ করেন।

শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক আরো বলেন, এদেশ কোন ইসলামী দেশ নয় এবং এদেশকে কখনো ইসলামী রিপাবলিকান দেশ হতে দেওয়া হবে না।

এদিকে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি, শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিকের এই বক্তব্যকে চরম হিংসাত্মক ও স্পষ্ট উস্কানিমূলক উল্লেখ করে ইতোমধ্যেই সামাজিক মাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করতে শুরু করেছেন অনেকেই।

জাগো প্রহরী/এফজে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য