নতুন কমিটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, বিশেষ মহলের ইঙ্গিতে : মুফতি ওয়াক্কাছ


জাগো প্রহরী :
হেফাজতে ইসলামের নতুন কমিটি বিশেষ মহলের ইঙ্গিতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন সংগঠনটির সদ্য বিলুপ্ত কমিটির নায়েবে আমির ও ঢাকা মহানগর হেফাজতের প্রধান উপদেষ্টা জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের আমির মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাছ। গতকাল রোববার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর দক্ষিণে ধোলাইপাড় বাসস্ট্যান্ডসংলগ্ন আসকান টাওয়ারে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ অভিযোগ করেন। গতকাল চট্টগ্রামের হাটহাজারীর দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসায় হেফাজতের নতুন যে কমিটি হয়েছে, সেখানে মুফতি ওয়াক্কাছসহ অনেকেই বাদ পড়েছেন। বাদ পড়াদের মধ্যে আল্লামা আহমদ শফীর ছেলে মাওলানা আনাস মাদানী, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মুফতি মঈনুদ্দীন রুহিসহ অনেকেই রয়েছেন।

সাবেক সংসদ সদস্য মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাছ বলেন,  হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহমদ শফী সাহেব ইন্তেকাল করেছেন, এ কারণে তার পদটি পূরণের দরকার ছিল। কিন্তু গতকাল হাটহাজারীতে যে কমিটি পুনর্গঠন হয়েছে, তা বিষয়বস্তু ছিল না। শুধু আমিরের জায়গায় একজন আমির ঠিক করলেই হয়ে যেত। ’ ওয়াক্কাছ অভিযোগ করেন, ‘আমি তো কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির, ঢাকা মহানগর কমিটির প্রধান উপদেষ্টা। আমার সঙ্গে শুরুতেও কোনো আলোচনা করা হয়নি, এমনকি সম্মেলনের কথা পর্যন্ত বলা হয়নি, চিঠিও দেওয়া হয়নি। এভাবে অনেক আলেম বাদ পড়ে গেছেন। ’ তিনি বলেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে হেফাজতে ইসলামের ব্যাপকতা, সর্বজনীনতা ক্ষুণœ করার জন্য বিশেষ মহলের ইঙ্গিতে সংগঠনকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য এটা একটা পদক্ষেপ।

কারও ইঙ্গিতে এগুলো করা হয়েছে। ’ বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের শরিক জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের আমির মুফতি ওয়াক্কাছ আরও বলেন, ‘যারা চায় না এদেশে উলামায়ে কেরাম একসঙ্গে থাকুক, কোরআনের কথা বলুক, তারাই এটা করিয়েছেন বলে সন্দেহ হচ্ছে আমার। ’ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মুফতি ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মঈনুদ্দীন রুহি, আনাস মাদানী, মুফতি আবদুস সাত্তার, মাওলানা ইমরানুল বারী, আলতাফ হোসেন, মুফতি নাসির উদ্দিন কাসেমী প্রমুখ।

জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য