মালিতে ফ্রান্সের ড্রোন হামলায় আল কায়েদার ৫০ সদস্য নিহত


জাগো প্রহরী :
পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে ড্রোন হামলায় আল কায়েদার সঙ্গে কাজ করা একটি গ্রুপের ৫০ সদস্যেরও বেশি নিহত হয়েছে। একই সাথে চারজনকে জীবিত উদ্ধারের পাশাপাশি প্রচুর অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়েছে।

ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লি জানিয়েছেন, গত শুক্রবার বুরকিনা ফাসো ও নাইজেরিয়ার সীমান্ত এলাকায় ওই হামলা চালানো হয়। এ সময় সেখানে নজরদারি চালাচ্ছিল ফরাসি বাহিনীর ড্রোন। তখনই মধ্য মালিতে নজরে আসে একটা বিশাল কনভয়। এই গ্রুপটি আল কায়েদার সঙ্গে কাজ করে।

পার্লি আরও জানিয়েছেন, তাদের নজরদারি ড্রোন দেখার পর গোপন ডেরায় আশ্রয় নেয়। সেই ডেরা চিহ্নিত করে হামলা চালানো হয়। বেশিরভাগের মৃত্যু হয়েছে। চারজনকে জীবিত আটক হয়েছে। পাশাপাশি প্রচুর অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে ডেরা থেকে।

বিষয়টিতে ফ্রান্সের সেনা মুখপাত্র কর্নেল ফ্রেডরিক বারব্রি বলেন, এবার তাদের লক্ষ্য গ্রেটার সাহারায় ইসালমিক স্টেট। তিন হাজার সেনা ইতোমধ্যেই তার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে।

গত জুনেই মালিতে বড়সড় সাফল্য পেয়েছিল ফরাসি সেনা। আল কায়েদার শীর্ষ নেতা আবদেলমালেক দ্রুকদেল ফরাসি সেনার হামলায় নিহত হন। তারপর ওই অঞ্চলে দায়িত্ব পায় ইয়াদ আঘ ঘালি। শুক্রবারের হামলায় আল কায়েদার এই কমান্ডার নিহত হয়েছেন কি-না, সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলেননি পার্লি।

জাগো প্রহরী/এফজে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য