'ছাত্রলীগ ও যুবলীগের রাজনীতি নিষিদ্ধ করে মা-বোনদের ইজ্জত-আব্রু রক্ষা করুন'


জাগো প্রহরী : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জসহ সারাদেশে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের ধর্ষণ, গুম, খুন ও চাঁদাবাজি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলনের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

একই কারণে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নিষিদ্ধের দাবি জানান চরমোনাই পীর। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে চরমোনাই পীর বলেন, ‘বেগমগঞ্জে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ ছড়িয়ে দিয়ে চরম বর্বরতাকেও হার মানিয়েছে।

এমতাবস্থায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের রাজনীতি নিষিদ্ধ করে মা-বোনদের ইজ্জত আব্রু রক্ষা করুন। ধর্ষণ, গুম, খুন ও চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্মের ফলে করোনা মহামারির চেয়েও ছাত্রলীগ আজ মানুষের জন্য অভিশাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘সরকারের লোকজন গুম, খুন ও ধর্ষণের মহোৎসবে মেতে উঠে জাতিকে কলঙ্কিত করেছে। ধর্ষণের সেঞ্চুরি উদযাপন করা ছাত্রলীগ এখন সারাদেশে ধর্ষণের মহারাজ্য তৈরি করেছে।

সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনার ক্ষত শুকাতে না শুকাতেই নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে তাদের অপকর্ম সারাদেশের জনগণকে স্তম্ভিত করেছে।

অব্যাহত ধর্ষণ ও জঘন্য অপরাধের সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করে দেশের মা-বোনদের ইজ্জত রক্ষায় ব্যর্থ হলে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত।’

মুফতি রেজাউল করীম বলেন, ‘জাতিকে অভিশাপ থেকে বাঁচাতে ইসলামি শাসন প্রতিষ্ঠার কোনও বিকল্প নেই। ইসলাম সব সময় ন্যায় ও ইনসাফ প্রতিষ্ঠা এবং দেশকে সমৃদ্ধশালী করার পক্ষে, কোনও ধরনের অন্যায়ের সুযোগ ইসলামে নেই। মানুষের প্রকৃত স্বাধীনতা, জান-মাল ও ইজ্জতের নিশ্চয়তার বিধান ইসলাম ছাড়া সম্ভব নয়।’


জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ