ভারত অত্যন্ত নোংরা একটি দেশ : ট্রাম্প


জাগো প্রহরী :
এ বছরের শুরুর দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারত সফরে এলে তার আগমনে দেশজুড়ে ব্যাপক আয়োজন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে দেশে ফিরে বেশ কয়েকবারই ভারতবিরোধী কথাবার্তা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এবার তিনি ভারতের বায়ুদূষণ প্রসঙ্গে বললেন, ‘ভারত অত্যন্ত নোংরা একটি দেশ’। যদিও তিনি নিজেকে ভারতের একজন শুভাকাঙ্ক্ষী বলে নিজেকে দাবি করেন।

এর আগেও ভারত ‘বেশি ট্যারিফ নেয়’ বলে অভিযোগ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সামনেই আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এর আগে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের সঙ্গে ডিবেটে (বিতর্ক) এই কথা বললেন ট্রাম্প। সারা বিশ্বজুড়ে পরিবেশের যে পরিবর্তন হচ্ছে সেই পরিপ্রেক্ষিতে ‘প্যারিস ডিল’ থেকে আমেরিকা নাম তুলে নেয়া নিয়ে এ দিন বিতর্ক হচ্ছিল।

ট্রাম্প বলেন, ‘চীনের হাল দেখুন। কিরকম নোংরা একটি দেশ। রাশিয়া বা ভারতের অবস্থা দেখুন, কি নোংরা, বাতাস মারাত্মক দূষিত’।

ইংরেজিতে ফিলথি (নোংরা) শব্দটি ব্যবহার করেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘প্যারিস পরিবেশ চুক্তি মানলে মার্কিন ব্যবসা সব লাটে উঠে যেত, মারাত্মক ক্ষতি হত, সহস্র ডলার ব্যয় করতে হতো।’

তার মূল বক্তব্য হলো- ‘দূষণ বেশি ছড়াচ্ছে ভারত ও চীন, কিন্তু তাদের তেমনভাবে কলকারখানা বন্ধ করতে বলা হচ্ছে না। যেখানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অনেক বেশি পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে পরিবেশ রক্ষার খাতিরে।’

এই কথা অতীতেও বলেছেন ট্রাম্প এবং ভারতের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে যুক্তিও খাড়া করা হয়েছে। কিন্তু এই প্রথমবার তথাকথিত বন্ধুরাষ্ট্রের জন্য ‘ফিলথি’ শব্দটি ব্যবহার করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য