গাবতলীর দুর্ভোগ কমাতে নির্মাণ হচ্ছে ৮ লেনের নতুন সেতু


জাগো প্রহরী :
রাজধানীর গাবতলীর দুর্ভোগ কমাতে তুরাগ নদীর ওপর বর্তমান সেতুর পাশে নির্মিত হচ্ছে আট লেনের নতুন ব্রিজ। প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে ১২ লেনবিশিষ্ট সেতু দিয়ে যাতায়াত করবে যানবাহন। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর বলছে, আসছে ডিসেম্বরে শুরু হবে প্রকল্পের কাজ। সেক্ষেত্রে আগামী বছর অন্য জায়গায় সরতে পারে গাবতলী গরুর হাট।

রাজধানীর গাবতলী। দেশের প্রায় সব জেলা থেকে ঢাকায় যাতায়াতের অন্যতম পথ। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে তুরাগ নদীর ওপরের আমিনবাজার সেতু ভোগাচ্ছে দু-পাশের যানবাহন-যাত্রীদের। ১৯৭২ সালে নির্মিত চার লেনের এই সেতু ঠিক সামাল দিতে পারছে না যানবাহনের চাপ। এখন দিনের বেলা দুর্ভোগ কম হলেও- রাতে এই সেতু পার হতে গতি কমে যানবাহনের, বাড়ে বিড়ম্বনা।

গাবতলী বাস টার্মিনালের সঙ্গেই গরুর হাট। বিশেষ করে কোরবানি ঈদের যাতায়াতে আরো বেশি ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা। তবে দীর্ঘদিন পর হলেও-স্বস্তির পথ খুলছে। চার লেনের সেতুর পাশে নতুন ৮ লেনবিশিষ্ট সেতু নির্মাণ করছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান জানান, রাজধানীর এই গুরুত্বপূর্ণ স্থানে যানজট লেগেই থাকে যা ৪ লেনের সেতু সামাল দিতে পারে না। তাই এই ৮ আট লেনের সেতুর উদ্যোগ। আগামি ডিসেম্বরেই সেতুর কাজ শুরু হবে বলেও জানান তিনি।

গাবতলী-আমিনবাজার সেতু তখন হবে ১২ লেন বিশিষ্ট। থাকবে পথচারীবান্ধব ফুটপাত। যানবাহন ইউটার্ন নেয়ার ব্যবস্থা। ব্রিজ পার হয়ে আলাদা উড়াল সড়কে দক্ষিণ -পশ্চিমাঞ্চল থেকে আসা যানবাহন যাবে সরাসরি গাবতলী বাস টার্মিনালে। আর এই সেতুর কারণে অন্য জায়গায় স্থানান্তরিত হতে পারে বর্তমানের গাবতলী গরুর হাট।

রাজধানীর যানজট কমাতে সদরঘাট-টঙ্গী-গাবতলী-সাভার নিয়ে প্রস্তাবিত ইনার রিং রোডের সঙ্গে যুক্ত থাকবে ১২ লেনের নতুন সেতু। পুরো এই উন্নয়নযজ্ঞের মাধ্যমে যাত্রা শুরু হবে আধুনিক গাবতলীর।

জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য