সব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎ সংযোগ ও এসির অবস্থা পরীক্ষা করার নির্দেশ


জাগো প্রহরী : নারায়ণগঞ্জে মসজিদে এসি বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাস তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। এ কমিটি পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দেবে। পাশাপাশি সব বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানির আওতাধীন এলাকায় মসজিদ-মন্দির ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎ সংযোগ ও এসির অবস্থা পরীক্ষা করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ।

এদিকে মসজিদে এসি বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ শোক প্রকাশ করেছেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

প্রতিমন্ত্রী শনিবার এক শোকবার্তায় নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিমতল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে শুক্রবার রাতে এসি বিস্ফোরণে নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত এবং আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন। একইসঙ্গে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতিও গভীর সমবেদনা জানান।

তিতাস জানায়, কোম্পানির মহাব্যবস্থাপক আব্দুল ওহাবের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাতে এশার নামাজ আদায়ের সময় নারায়ণগঞ্জের একটি মসজিদে ছয়টি এসি একই সঙ্গে বিস্ফোরিত হয়। এ ঘটনায় এ পযন্ত ১২ জন মারা গিয়েছেন। বিস্ফোরণের পর ৩৭ জনকে দগ্ধ অবস্থায় শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। যাদের সবার অবস্থাই আশঙ্কাজনক বলে জানান চিকিৎসকরা।

বিস্ফোরণের পর মসজিদে গ্যাসের আগুনও দেখা গিয়েছে। একটি সূত্র জানায়, মসজিদের নিচে গ্যাসের লাইন রয়েছে। সেই গ্যাস লিকেজ হয়ে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে কি না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
স্থানীয়দের অভিযোগ, মসজিদের নিচ দিয়ে গ্যাসের লাইনের এই লিকেজের বিষয়ে বহুবার অভিযোগ করা হয় তিতাসের কাছে। কিন্তু তিতাস কোনও ব্যবস্থা নেয়নি।

এদিকে তিতাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী মো. মামুন বলেন, ‘কমিটি গঠন করেছি। তদন্ত শুরু করা হয়েছে। আমি নিজে তদন্ত দল নিয়ে এলাকা পরিদর্শন করেছি। এখনই বলা যাচ্ছে না এটা গ্যাসের কারণেই হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে বলা যাবে।’

জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ