আমিরাত সফরে গেলেন ইসরায়েলের মোসাদ প্রধান


জাগো প্রহরী : সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্কের পূর্ণ স্বাভাবিকরণের বিষয়ে চুক্তি সইয়ের পর ইহুদিবাদী ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রধান ইয়োসি কোহেন আবু ধাবি সফরে গেছেন। এটি হচ্ছে ইসরাইলের পক্ষ থেকে উচ্চ পর্যায়ের কোনো কর্মকর্তার প্রথম আমিরাত সফর এবং এই সফরে কোহেন নিরাপত্তা ইস্যু নিয়ে আমিরাতের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন।

গত কয়েকদিনে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নয়নে যেন উঠেপড়ে লেগেছে ইসরায়েল ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। ২০১০ সালে দুবাইয়ের একটি হোটেলে এক হামাস নেতাকে হত্যায় ইসরায়েলের গোয়েন্দা বাহিনী মোসাদ দায়ী অভিযোগ ওঠার পর থেকেই দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন চলছিল। তবে গত সপ্তাহে প্রথমে কথিত ঐতিহাসিক চুক্তি, এরপর টেলিফোন যোগাযোগ চালু, এবার খোদ মোসাদ প্রধান ইয়োসি কোহেন আমিরাত সফর করে সম্পর্কোন্নয়নের পথে আরও একধাপ এগোলেন।

মঙ্গলবার আমিরাতের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ডব্লিউএএম জানিয়েছে, ইসরায়েলের মোসাদ প্রধান আমিরাতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা শেখ তাহনুন বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। দুই পক্ষের মধ্যে নিরাপত্তা সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। পাশাপাশি আঞ্চলিক উন্নয়ন ও অভিন্ন স্বার্থে পারস্পরিক মত বিনিময় করেছেন দুই কর্মকর্তা। এছাড়া করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের বিষয়েও কথা বলেছেন তারা।

আরব আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পেছনে ইয়োসি কোহেন প্রধান ভূমিকা রেখেছেন বলে ইসরাইলের ওয়াইনেট নিউজ ওয়েবসাইট জানিয়েছে। এছাড়া, আরো কয়েকটি পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলের আরব দেশের সঙ্গে ইসরাইল সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছে। এক্ষেত্রেও কোহেনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে৷

গত বৃহস্পতিবার সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইসরায়েলের মধ্যে ‘ঐতিহাসিক’ এক চুক্তি হয়েছে বলে ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে ইসরায়েল-আমিরাত উভয়ই। সূত্র: আল জাজিরা ৷

জাগো প্রহরী/গালিব

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ