গাজায় সব ধরনের আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইল,বামপন্থীদের নেতানিয়াহু বিরোধী আন্দোলন


জাগো প্রহরী : গাজায় ফিলিস্তিনিদের জন্য খাদ্যপণ্য ও ওষুধ ছাড়া সব ধরনের আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইল। রোববার ফিলিস্তিনি এক কর্মকর্তা তুর্কি সংবাদ মাধ্যম আনাদোলু এজেন্সিকে এই তথ্য জানিয়েছেন। খবর মিডল ইস্ট মনিটর।

খবরে বলা হয়েছে, সব বেসরকারি খাত সংস্থাগুলোকে খাদ্য ও ওষুধ বাদে সব প্রকার পণ্য এবং পণ্য প্রবেশ বন্ধে ইসরাইলি সিদ্ধান্তের বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। তবে, এ বিষয়ে ইসরাইলি সরকারের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। প্রসঙ্গত, ফিলিস্তিনি ভূখন্ড থেকে বেলুন বোমা হামলার অজুহাতে গত সপ্তাহ থেকে গাজায় জ্বালানি বন্ধ আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে ইসরাইল। এর আগে গাজায় মৎস্য কেন্দ্র বন্ধ করে দেয় ইহুদিবাদী দেশটি। এ ছাড়া এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে গাজায় হামাসের ঘাঁটি লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। 

এদিকে চলমান নেতানিয়াহুর পদত্যাগের দাবিতে ইসরাইলে আন্দোলন জোরদার হয়েছে। নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে দেশটির বামপন্থীদের আন্দোলন চলছেই। এরই মধ্যে আন্দোলনের সময় এক মাস ছাড়িয়েছে। গত শনিবারও জেরুজালেমে তার বাসভবনের  সামনে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী জড়ো হয়। দুর্নীতির অভিযোগ, বেকারত্ব বৃদ্ধি ও করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় ব্যর্থতার কারণে নেতানিয়াহুর পদত্যাগ দাবি করছে তারা। খবর রয়টার্স ও জেরুজালেম পোস্ট। 
বিক্ষোভ থেকে বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছে, নেতানিয়াহুকে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে চলমান অভিযোগ আদালতে থাকাকালীন পদত্যাগ করতে হবে। একই সঙ্গে কভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেও তার সরকার ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করেছে বিক্ষুব্ধরা। এর আগে গত মঙ্গলবার ক্ষমতা ছেড়ে নতুন নির্বাচনের দিন ঘোষণার জন্য তিনদিন সময় বেঁধে দেয় আন্দোলনকারীরা। সময় শেষ হওয়ার পর তারা আবার নেতানিয়াহুর পদত্যাগ চেয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। সূত্র : রয়টার্স, জেরুজালেম পোস্ট, মিডল ইস্ট মনিটর।

জাগো প্রহরী/গালিব

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য