‘চামড়ার মূল্য নির্ধারণে সরকার সিন্ডিকেটের কাছে মাথানত করেছে’


জাগো প্রহরী : আসন্ন কোরবানির ঈদের আগে পশুর চামড়ার ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে দেশের চামড়াশিল্প ও দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি আসন্ন কোরবানির ঈদের আগে আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সংগতি রেখে চামড়ার দাম নির্ধারণ ও সংঘবদ্ধ চক্রের হাত থেকে চামড়াশিল্পকে রক্ষার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, কোরবানির সময় আসন্ন অথচ সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলের কোনো তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। বিষয়টি অত্যন্ত হতাশা ও উদ্বেগের। কয়েক বছর ধরে একটি চক্র চামড়া খাতে নৈরাজ্য করে যাচ্ছে। ফলে চামড়াশিল্প ও বহু দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সেইসাথে দেশের এতিম ও গরিব জনগোষ্ঠী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

চরমোনাইয়ের পীর সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে মিল রেখে চামড়ার দাম নির্ধারণ এবং চামড়ার বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। নতুবা এই দেশের একটি সম্ভাবনাময় শিল্প খাত ধ্বংস হয়ে যাবে এবং বহু দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হবে। চামড়ার বাজার নিয়ন্ত্রণ করে দেশের দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে বাঁচাতে হবে। চামড়াশিল্প রক্ষা করা গেলে দেশের অর্থনীতি ও দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান উভয়টি উপকৃত হবে।

তিনি বলেন, এবার চামড়ার যে দাম নির্ধারণ করেছে তা গত বছরের চেয়েও অনেক কম। ফলে এবারও চামড়া নিয়ে ভয়াবহ সমস্যা সৃষ্টি হবে। তিনি বলেন, ‘সরকার সিন্ডিকেটে কাছে মাথানত করেছে।’

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য