কোটি মানুষকে ত্রাণ ও করোনায় মৃত সাড়ে ৪শ’ লাশ দাফন করেছে ইসলামী আন্দোলন


জাগো প্রহরী : কোভিড-১৯ সৃষ্ট বৈশ্বিক বিপর্যয়ে বাংলাদেশের মানুষ যখন কর্মচ্যুত হয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছিল, তখন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নিয়মতান্ত্রিক সকল কার্যক্রম স্থগিত করে মানুষের সেবায় নিয়োজিত হয়েছে। যখন চীন থেকে সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সংবাদ পাওয়া যায়, তখনই দলের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম দেশের মানুষের প্রতি অকৃত্রিম দায়বদ্ধতা থেকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশসহ সকল সহযোগী সংগঠনের প্রতি করোনায় সৃষ্ট বিপর্যয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি, সুরা উপকরণ বিতরণ ও সামর্থ্যহীন মানুষদের সার্বিক সহযোগিতায় বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করেন।

তারই আলোকে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যন্ত সকল শাখায় ত্রাণ কমিটি, চিকিৎসা সহায়তা কমিটি, ফসল কাটা কমিটি, করোনায় মৃত ব্যক্তিদের লাশ দাফন কমিটি গঠনের মাধ্যমে গণমানুষের সেবায় আত্মোৎসর্গ করেছে দলের নেতাকর্মীরা।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যাণ বিভাগের ৩০ জুন পর্যন্ত রিপোর্টে দেখা গেছে, কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক এ পর্যন্ত এক কোটি ৩৬ হাজার দুইশত ত্রিশ জন মানুষের হাতে ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছে দলের নেতাকর্মীরা।

এছাড়া ২৫ হাজার মানুষকে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান, ৫ হাজার পরিবারের ফসল কেটে বাড়িতে পৌঁছে দেয়া এবং করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীদের দাফন-কাফন, সৎকার করতে সারাদেশে ৫শ’ দাফন-কাফন, সৎকার টিমের ১০ হাজার স্বেচ্ছাসেবক ৩০ জুন পর্যন্ত মুসলমান, হিন্দু ও খ্রিষ্টানসহ মোট চারশত পঞ্চাশ লাশ দাফন কাফন ও সৎকার করেছে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম গত ১ এপ্রিল দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে ভিডিও কনফারেন্সে বলেন, চলমান সংকটে আমরা মানুষের পাশে থাকবো। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা ধর্ম-বর্ণ, দল-মত নির্বিশেষে প্রয়োজনানুসারে সর্বস্তরের মানুষের পাশে দাঁড়াবো ইনশাআল্লাহ।’ আমীরের নির্দেশনা অনুযায়ী একাধিক জেলা দাফন টিম হিন্দু ও খ্রিস্টান ধর্মালম্বী মৃত ব্যক্তির সৎকার করেছে।

করোনা দুর্যোগে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সর্বস্থরের নেতাকর্মীরা নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী কর্মহীন অসহায়দের সাহায্যে এগিয়ে এসে ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রেখেছেন, কৃষকদের ধান কেটে দিয়ে সহায়তা করেছেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতবরণকারীদের দাফন-কাফন ও সৎকারে ভুমিকা রেখেছেন তাদের সকলের প্রতি আন্তরিক মোবারকবাদ জানিয়ে সকলের প্রতি রব্বুল আলামিনের দরবারে দোয়া ও মুনাজাত করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই।

চরমোনাইয়ের পীর বলেন, যারা মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের রাজী ও খুশির জন্য এই মহৎ সেবায় অংশ নিয়ে মানুষের দুর্দিনের সাথী হয়েছেন তাদের কাজের উত্তম প্রতিদান একমাত্র আল্লাহ রাব্বুল আলামীন দিবেন।

তিনি বলেন, আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি। ততদিন পর্যন্ত এই মহামারী শেষ না হবে ততদিন পর্যন্ত সামর্থ অনুযায়ী কর্মহীন অসহায় মানুষের সহযোগিতায় আমরা নিয়োজিত থাকবো ইনশাআল্লাহ।

জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য