দেশ-বিদেশে কোরবানি নিয়ে কোনো প্রকার ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না : আল্লামা বাবুনগরী



জাগো প্রহরী : দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস  ও হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব, শায়খুল হাদীস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বুুধবার (২২ জুলাই) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে বলেন, কোরবানি ইসলাম ধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত।
সামর্থ্যবান নর-নারীর উপর কোরবানি করা ওয়াজিব।
কোরবানি বছরে কেবল একবার আদায় করতে হয়। কোরবানির মাধ্যমে মহান আল্লাহর নৈকট্য ও ভালোবাসা অর্জন হয়৷

আল্লামা বাবুনগরী বলেন, সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশ বাংলাদেশের ঢাকা মুহাম্মাদপুর জাপান গার্ডেন সিটি, চট্টগ্রামের হাটহাজারী ফতেয়াবাদ, সিলেটের এমসি কলেজ এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে কুরবানির ব্যাপারে বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে এলাকা কর্তপক্ষ।

আল্লামা বাবুনগরী উপরোক্ত এলাকাগুলোর কর্তপক্ষের এরকম দুঃসাহসি সিদ্ধান্তকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করে বলেন; স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস আদালত, ব্যবসা বানিজ্য ও গার্মেন্টস-কোম্পানি  চলতে পারলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কুরবানিও অবশ্যই করা যাবে। 

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরবানি আদায়ের কথা বলার পরেও উক্ত এলাকাগুলোর  এরকম হঠকারী সিদ্ধান্তকে চরম ধৃষ্টতা বলে অভিহিত করেন হেফাজত মহাসচিব।

করোনাভাইরাসের কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানালেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে শরয়ী পদ্ধতি অনুযায়ী কোরবানি করলে কোনো সমস্যা হবে না বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।  সুতরাং করোনাভাইরাসের অজুহাত দিয়ে এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা মানে ধর্মীয় বিধান পালনে অবৈধ হস্তক্ষেপ করা। যা কোনো অবস্থায় মুসলমানরা বরদাশত করতে পারে না। 

আল্লামা বাবুনগরী অনতিবিলম্বে এরকম নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাখ্যান করার জোর দাবি জানিয়ে বলেন, সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশে কোরবানি নিয়ে কোনো প্রকার ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না। প্রয়োজনে তাওহিদী জনতা নিষেধাজ্ঞাকারীদের মোকাবেলায় সুশৃঙ্খল আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে বলে কড়া হুশিয়ারিও দেন হেফাজত মহাসচিব। 

এদিকে ভারতে কোরবানি নিষেধাজ্ঞার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন,
বিশ কোটি মুসলমানদের দেশ ভারতে আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানি বন্ধ করার জন্য হাইকোর্টে মামলা করেছে উগ্র হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপির সাংসদ অর্জুন সিং। তাছাড়া কোরবানি উপলক্ষে ভারতীয় মুসলমানদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানি ও নির্যাতন করা হয়ে থাকে প্রতিবছরই। এসবের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, গণতান্ত্রিক দেশ ভারতে মুসলমানদের ধর্মীয় বিধান পালনে নিষেধাজ্ঞা এবং হয়রানি করা চরম ঘৃণিত ও নিন্দনীয় একটি কাজ।

ভারত সরকারের প্রতি উপরোক্ত গর্হিত কাজ থেকে বিরত থাকার জোর দাবি জানিয়ে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, মুসলমানদেরকে তাদের ধর্মীয় বিধান পালনে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দিতে হবে। নতুবা ভারত একটি হিন্দুত্ববাদী সাম্প্রদায়িক দেশ হিসেবে বিশ্ব পরিমণ্ডলে  ঘৃণিত ও সমালোচিত হবে। 

যেকোনো দেশে যার যার ধর্ম পালন করার স্বাধীনতা না থাকলে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি হয় এবং অরাজকতা ও বিশৃঙ্খলা তৈরি হয় বলে মন্তব্য করেন আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।  

ভারতের উলামায়ে কেরাম ও তাওহিদী জনতাকে এসমস্ত ইসলাম বিরোধী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার জন্যও আহ্বান জানান হেফাজত মহাসচিব।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য