নেপালি যুবকের মাথা ন্যাড়া করে 'জয় শ্রীরাম' লিখে দিল ভারতীয়রা!


জাগো প্রহরী : তিনটি বিতর্কিত ভূখণ্ডকে নিজেদের মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত করার জেরে ভারতের সঙ্গে সীমান্ত উত্তেজনা চলছিল নেপালের। এরই মধ্যে কয়েক দিন আগে ভগবান রামের জন্ম উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় নয় বলে বিতর্ক উসকে দিয়েছিলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি। বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক চলার মধ্যেই রামের জন্মস্থানের খোঁজে নেপালের খোঁড়াখুঁড়ি শুরু করেছে তার সরকার।

উত্তর প্রদেশের বারানসিতে তারই ফল ভুগতে হলো এক নেপালি যুবককে। তাকে শারীরিকভাবে হেনস্থা করার পাশাপাশি মাথা ন্যাড়া করে সেখানে 'জয় শ্রীরাম' লিখে দিল উত্তর প্রদেশের একটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের সদস্যরা।

পাশাপাশি ওই যুবককে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ওলির বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়ানো ছাড়াও জয় শ্রীরাম বলতে ও ভারতের পক্ষে স্লোগান দিতে বাধ্য করে হিন্দুত্ববাদীরা।

সম্পূর্ণ ঘটনাটির ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই ভারতে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত নীলাম্বর আচার্য এর তীব্র নিন্দা করেছেন। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গে কথা বলে অপরাধীদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন তিনি।

যোগী আদিত্যনাথ তাঁকে উত্তর প্রদেশে বসবাসকারী নেপালের নাগরিকদের সুরক্ষার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পাশাপাশি এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দেবেন বলেও আশ্বস্ত করেছেন। এদিকে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির লোকসভা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটায় প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়েছে ভারতের রাজনৈতিক মহলে।
এ প্রসঙ্গে শুক্রবার উত্তর প্রদেশের ডিজিপি জানান, বারানসি জেলার পুলিশের একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে এ ঘটনার তদন্তের ভার দেওয়া হয়েছে। এখনো পর্যন্ত সন্তোষ পাণ্ডে বলে একজন অভিযুক্ত গ্রেপ্তার হলেও এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত অরুণ পাঠক পলাতক। বিশ্ব হিন্দু সেনা নামে বারানসির একটি সংগঠনের ওই নেতার সন্ধানে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি তাকে গ্রেপ্তার করা হবে। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।

 জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য