চলমান সংকট বিষয়ে ১৮ আগস্ট বেফাকের আমেলা- শুরার জরুরি বৈঠক


জাগো প্রহরী : বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড- বেফাকের চলমান অস্থিরতা, অনিয়ম ও সংকট থেকে উত্তরণের জন্য কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) খাস কমিটির জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক সূত্রে জানা জানা যায়, ফোনআলাপ ফাঁস এবং শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাওলানা আবু ইউসুফসহ ৩ জনকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে বেফাক। তবে ফোনআলাপে জড়িত বেফাকের মহাসচিব মাওলানা আবদুল কুদ্দুস। তার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার খাস কমিটির নেই। তাই আমেলা শুরার বৈঠক জরুরি।

মহাসচিবের অভিযোগ আমলে নিয়ে তার ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে ১৮ আগস্ট বেফাকের আমেলা ও শুরার সদস্যদের জরুরি বৈঠক আহ্বান করা হয়েছে। অবশ্য আগের দিন ১৭ আগস্ট খাস কমিটিরও বৈঠক রয়েছে। পরপর দুটি বৈঠকই বেফাকের নিজ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

মঙ্গলবারের বৈঠকে উপস্থিত থাকা একাধিক খাস কমিটির সদস্যদের সাথে কথা বলে এসব বিষয় নিশ্চিত হওয়া গেছে ৷

সূত্রে জানা যায়, আগামী বৈঠকে অনিয়মে জড়িতদের ব্যাপারে বিশেষভাবে সিদ্ধান্ত হতে পারে।

বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ এর সহ-সভাপতি আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, বেফাকের সহ-সভাপতি মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, মাওলানা নুরুল ইসলাম, মাওলানা সাজিদুর রহমান, মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়া, মাওলানা মুসলেহ উদ্দীন রাজু, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, পীরজঙ্গী মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা ছফিউল্লাহ, ময়মনসিংহের মাওলানা আব্দুল হক হাফেজ্জী,বেফাকের মহাসচিব মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, সহকারী মহাসচিব মাওলানা নুরুল আমিন, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা মুনীরুজ্জামান প্রমুখ।

জাগো প্রহরী/গালিব

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য