প্রস্তাবিত বাজেটে কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও যুব উন্নয়ন উপেক্ষিত হয়েছে : ইসলামী যুব আন্দোলন


জাগো প্রহরী : ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কে এম আতিকুর রহমান বলেন, ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেটের অংক অনেক বড় দেখালেও এর সাথে আয়ের কোন মিল নেই। তাই এই বাজেট হলো মুখরোচক হাওয়াই মিঠাই এর মতো। করোনা সংকটের শুরু থেকেই দেশের বিপুল বেকার যুবকের সঙ্গে নতুন করে কর্মহীন হয়ে পড়া আরো প্রায় ২ কোটি যুবক যুক্ত হয়েছে। তারপরও সরকার এই বাজেটে নতুন কোন কর্মসংস্থান সৃষ্টির তেমন কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি বরং প্রস্তাবিত বাজেটে কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও যুব উন্নয়ন উপেক্ষিত হয়েছে।

আজ সোমবার ( ১৫ জুন ) বিকাল ৩টায় পল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন এর পরিচালনায় ইসলামী যুব আন্দোলন এর নিয়মিত মাসিক বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান এই অর্থ বাজেটে চারটি খাতকে গুরুত্ব দেয়ার বিষয় সুপারিশ করেছে, খাতগুলো হলো স্বাস্থ্য, কৃষি, কর্মসংস্থান ও সামাজিক নিরাপত্তা এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে এমন ব্যয় রেখে অনুৎপাদনশীল ব্যয় কাট ছাট করার পরামর্শ দিয়েছেন। তারপরও সরকার এই বিষয়ে তেমন কোন কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি ৷

কেন্দ্রীয় সভাপতি আরও বলেন, জাতির প্রাণশক্তি যুবকদের হাতকে জাতির কল্যাণে কাজে লাগাতে দেশে নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা এবং প্রবাসে অবস্থানরতদের সমস্যা সমাধানে সরকারকে আরো আন্তরিক হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক শ্রমসংস্থা (আইএলও) সহ প্রায় সকল প্রতিবেদনে দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের এই বেকার সমস্যা সমাধান না হয়ে বরং দিনদিন বেড়েই চলছে। করোনা সংকট বেকারত্বের এই অভিশাপকে আরো প্রকট করে তুলেছে। তাই বেকারত্বের অভিশাপ থেকে জাতিকে মুক্ত করতে সরকারের সংশ্লিষ্ট মহল এবং দেশের এলিট শ্রেণি বাস্তবসম্মত পরিকল্পনার মাধ্যমে সমাধানে এগিয়ে আসতে হবে। তাহলে দেশের যুবসমাজ দেশ ও জাতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারবে।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য