‘শ্রমিকদের সাথে অমানবিক আচরণ বন্ধ করে তাদের বেতন আদায়ে উদ্যোগ নিন’


জাগো  প্রহরী : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেছেন, করোনা পরিস্থিতিতে দেশের লাখ লাখ শ্রমিক বেতন না পেয়ে, চাকুরি হারিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। হাজার হাজার শ্রমিক করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও বেতন ভাতার জন্য রাজপথে বিক্ষোভ করছে। শ্রমিকদের অধিকার নিয়ে মালিকপক্ষ অমানবিক ও প্রতারণাপূর্ণ আচরণ করছে। এমন পরিস্থিতিতে শ্রমিকদের অধিকার আদায়ে সরকারের কার্যকর উদ্যোগ দেখা যায় না।

আজ বৃহস্পতিবার ( ২৫ জুন ) গণমাধ্যম পাঠানো এক বিবৃতিতে চরমোনাইয়ের পীর বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে পোশাক কারখানার শ্রমিকদের তিন মাসের বেতনের জন্য পাঁচ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনা দেয়া হলেও মালিকপক্ষ শ্রমিকদেরকে বঞ্চিত রেখে নিজেরাই এর সুফল ভোগ করছে। নানা অজুহাত হাজির করে গণহারে ছাঁটাই করেছে এবং অনেক শ্রমিক গত দুই-তিন মাস যাবত বেতন পাচ্ছে না। কারখানা চালু বা বেতন পাওয়ার আশায় এসব শ্রমিক কয়েক মাস ধরে ধার-দেনা ও খেয়ে-না খেয়ে বহু কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। শ্রমজীবী মানুষের সাথে মালিকদের প্রতারণা কোনভাবেই মেনে নেয়ার মত নয়।

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে যেখানে কর্মহীনদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করার কথা সেখানে কর্মজীবীদের তথা গার্মেন্টস শ্রমিকদের ছাটাই করে দুর্ভোগ সৃষ্টি করছে। যা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। সরকারকে শ্রমিক জনতার পক্ষে অবস্থান নিয়ে তাদের বেতন-ভাতা আদায়ে কার্যকরী উদ্যোগ এবং শ্রমিক ছাটাই বন্ধ করতে হবে ৷

জাগো প্রহরী/গালিব

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য