"করোনা থেকে মুক্তি পেতে রাষ্ট্রের সবার আল্লাহর কাছে তাওবা-ইসতেগফার করা জরুরি"


জাগো প্রহরী : বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর মাওলানা খুরশিদ আলম কাসেমী বলেছেন, করোনা ভাইরাসে সারা বিশ্ব থমকে আছে, এর থেকে মুক্তি পেতে নানাবিধ প্রচেষ্টা চললেও তা থেকে বের হওয়া যাচ্ছে না। সুতরাং করোনায় আতঙ্কিত না হয়ে আল্লাহর দরবারে রাষ্ট্রের কর্ণধারসহ সবার বেশি বেশি তাওবা ইসতেগফার করা এবং রাষ্ট্রকে আল্লাহর বিধান মত পরিচালনা করার অঙ্গীকার নিতে হবে।

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতেও সন্ত্রাস ও দুর্নীতি বন্ধ হচ্ছে না। সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে আরো কঠোর হতে হবে। এদের এমন শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে যাতে অন্য কেউ এ ধরনের কাজ করার সাহস না পায়। তিনি বলেন, এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে ছুটাছুটি করেও সাধারণ রোগীরাও চিকিৎসা পাচ্ছে না। চিকিৎসার অভাবে মারা গিয়েছে এমন সংবাদও জাতির সামনে এসেছে। সরকার স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিভাগকে আরো অধিক গুরুত্ব দিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে। অন্যথায় চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য খাতে আরো বিপর্যয় নেমে আসবে যা দেশের জন্য খুবই অকল্যাণকর। 

আজ সোমবার ( ১৫ জুন ) বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ঢাকাস্থ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্যদের এক বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বৈঠকে করোনা ভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্থ দিনমজুর ও নিম্মবিত্ত আলেমদের সহযোগিতার জন্য কেন্দ্রীয় ত্রান কমিটির কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 

পুরানা পল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন যুগ্মমহাসচিব মাওলানা জালালুদ্দীন আহমদ, মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন,  মাওলানা কোরবান আলী কাসেমী, অফিস ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুর রহমান হেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা এনামুল হক মুসা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা হারুনুর রশীদ ভূঁইয়া, সহপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ ফয়সাল, মহানগর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল মুমিন প্রমুখ।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য