সমকালীন অনুভূতি


মুফতি আ ফ ম আকরাম হুসাইন ৷৷

কওমী ওলামায়ে কেরাম সর্বদা হক্ক ও হক্কানিয়্যাতের উপর অটল-অবিচল। কোন নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান আজীবন সকলের অনুসরণীয় হবে- মুরুব্বি হবে; বিষয়টি এমন নয়।

গতকালও ঢাকার শীর্ষ ওলামায়ে কেরাম হক্কপন্থীদের মুরুব্বি ছিলেন। আজ মুরুব্বির আসনে আছে চিটাগাং। হয়তো  আগামীকাল চিটাগাং নেতৃত্ব থেকে ছিটকে পড়তে যাচ্ছে! 

আবার ঢাকা বা অন্য কোথাও হতে আল্লাহর মনোনীত দ্বীনের জাহেরি মুহাফিজ তৈরী হবে, আমরা তার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হবো, সে ইংগিত পাওয়া যাচ্ছে। 

মাদারী ইলমীখ্যাত ফেমাস মারকাযের বিষয়টি নিয়ে আমি বিন্দুমাত্রও বিচলিত নই। ঘুরে ফিরে কুদরতি ইশারায় কোন এক জায়গা থেকে বেরিয়ে আসবে হক্কপন্থীদের নেতৃত্ব ইনশাআল্লাহ। সুতরাং কোন দালালের দলাদলি নিয়ে মাথাঘামানো কী দরকার?

আর কাউকে ও-ই গদিতে বসাতে পারলে সেই কওমী প্রজন্মের এককনেতা হয়ে যাবেন। তার কথায় ক্বওমী সমাজ ওঠাবসা করবে- এমন ভেবে তাকে প্রতিষ্ঠিত করার ফিকির প্রশাসনের মারাত্মক ধোকার কারণ হবে। আশাকরি, এদেশের সুচতুর প্রশাসন সে ভুল করবে না। 

নেতৃত্বের যোগ্যতা, নেতার বয়স ও কার্যকরিতা আমি রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর জীবন থেকে নিতে চাই। নেতার বয়স হবে ৪০ থেকে ৬৩ বছরের মধ্যে। যে বয়সে পরনির্ভরশীল নন। নিজে নিজেই যে কোন বিষয় ভেবে ও উপলব্ধি করে সিদ্ধান্ত দিতে পারেন। 

-শিক্ষক,জামিয়া নূরিয়া ইসলামিয়া,আশরাফাবাদ,
কামরাঙীরচর,ঢাকা ও সেক্রেটারি জেনারেল,জাতীয় ইমাম পরিষদ বাংলাদেশ ৷

জাগো প্রহরী/এফআর


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ