সোমবার থেকে খুলছে কলকাতার মসজিদ-মন্দির-গির্জা


জাগো প্রহরী : অর্থনীতি বাঁচাতে ভারত ফের সচল হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। ৮ জুন থেকে খুলছে সব ধরনের অফিস, শপিংমল, উপাসনালয় ও রেস্তোরাঁ।

ভারত সরকারের জারি করা নতুন নির্দেশনায় বলা হচ্ছে, অফিস চালু হলেও থাকবে নির্দিষ্ট কর্মঘণ্টা, মন্দিরে প্রসাদ বিলি করা যাবে না এবং শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্রের সীমা থাকবে ২৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড।

এছাড়া রোগাক্রান্ত ব্যক্তি, গর্ভবতী নারী এবং বয়স্ক মানুষদের ঘরে থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে ৫ম দফার লকডাউনের মধ্যে সোমবার খুলছে সব ধর্মের ধর্মীয় স্থানগুলো। তবে খোলার অনুমতি মিললেও কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলতে হবে।

মন্দির, গির্জা খুললেও এখনই কোনো প্রসাদ বিতরণ  করা যাবে না। শরীরে দেয়া যাবে না কোনো ধরনের শান্তির জল বা হলি ওয়াটার। ছোঁয়া যাবে না বিগ্রহ বা পবিত্রগ্রন্থ। করা যাবে না কোনো ভক্তি সংগীত বা কীর্তন। তার বদলে রেকর্ড বাজানো যেতে পারে। পাশপাশি ফুল দিয়ে দেয়া যাবে না পুজো।

এছাড়া সংক্রমণ ঠেকাতে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রবেশ করতে হবে ধর্মীয়স্থানে। প্রবেশ ও প্রস্থানের স্থান হতে হবে পৃথক। ধর্মীয়স্থানে প্রবেশের সময় মুখে থাকতে হবে মাস্ক বা ফেস শিল্ড। না থাকলে কাউকে ধর্মীয় স্থানে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

মুসলমানদের শারীরিক দূরত্ব রেখে পড়তে হবে নামাজ। বাইরে থেকেই মুসল্লিদের আসতে হবে ওজু করে। আপাতত মসজিদে বন্ধ রাখা হবে মসজিদের ওজুখানা।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ