জুমার খুৎবায় সুদ নিয়ে আলোচনা করায় বাদ দেয়া হলো ইমামকে!



জাগো প্রহরী : চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে সুদ খাওয়া হারাম বলে মসজিদে আলোচনা করায় ইমামকে বাদ দিলেন মসজিদ কমিটির সদস্যরা। গত শুক্রবার জীবননগর পৌর শহরের ইসলামপুর আল-আকছা মসজিদে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনাটি জীবননগর শহরে টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানায়, জুমার নামাজের বক্তব্যে সুদ বিষয়ে আলোচনা করেন ইমাম সাহেব। কোরআন ও হাদিসের আলোকে সুদ বিষয়ে ইসলামের অবস্থান তুলে ধরেন। একই সাথে সুদের কারণে সমাজে সৃষ্ট সমস্যাগুলো ব্যাখ্যা করেন। ইমাম সাহেব কোরআন ও হাদিসের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, সুদ দেয়া ও নেয়া দুটোই সমান অপরাধ এবং সুদ খাওয়া সম্পূর্ণ হারাম। এ থেকে সবাইকে সাবধানে থাকতে হবে। ঈমান যদি ঠিক রাখতে হয়, যারা সুদের সাথে জড়িত তাদের তওবা করতে হবে।

এমন আলোচনা করায় ইমাম সাহেবের উপর ইসলামপুর গ্রামের কয়েকজন মুসল্লি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং মসজিদ কমিটির সভাপতি ও সম্পাদককে বলে ইমাম সাহেবকে ওই মসজিদ থেকে বাদ দিয়ে দেন। এ বিষয়ে ইসলামপুর আল-আকছা মসজিদের ওই ইমামের সাথে কথা বলার জন্য চেষ্টা করা হলে মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায় ৷

এদিকে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ খোকন বলেন, ইমাম সাহেব অনেক দিন এই মসজিদে আছে। যার ফলে স্থানীয় ব্যক্তিরা বলছেন, মসজিদে একজন নতুন ইমাম আনতে হবে। ইমাম সাহেবকে বিষয়টি বললে তিনি নিজেই এই মসজিদে আর নামাজ না পড়ানোর কথা বলেন।

জাগো প্রহরী/এফআর

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য