আওয়ামী ক্যাডারের গুলিতে পটিয়ার দুই হাফেজে কুরআনের মৃত্যুতে শাস্তির দাবি


জাগো প্রহরী : মাও. খালিদ ও হাফেজ ইবরাহিমের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি কার্যকর করতে হবে বলে দাবি জানিয়েছে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম মহানগর নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার ( ১৪ মে ) এক বিবৃতিতে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি রিদুয়ানুল হক শামসী এবং সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মাদ নাজিম উদ্দীন বলেন, “দেশে আজ মানুষের কোনো নিরাপত্তা নেই। দেশের এই কঠিন মুহূর্তে যখন মানুষ ঠিকমত দু’বেলা খাবার নিয়ে চিন্তিত, পবিত্র রমজান মাস চলমান; তার মধ্যেই এই ধরনের ন্যাক্কারজনক হামলা কিছুতেই মেনে নেয়া যায় না। আওয়ামী ক্যাডারদের প্রভাব বিস্তারের বলি হতে হয়েছে আজ নিরীহ নিরপরাধ দু’জন মাদরাসা শিক্ষার্থীকে।”

নেতৃদ্বয় বলেন, ‘আমরা তীব্র হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলতে চাই, অনতিবিলম্বে খুনিদের সনাক্ত করে গ্রেফতার ও তদন্তপূর্বক সর্বোচ্চ শাস্তি কার্যকর করা না হলে চট্টগ্রামের সর্বস্তরের ছাত্র-জনতাকে নিয়ে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তোলা হবে।’

উল্লেখ্য, গত (১২ মে) রাত সাড়ে ৯টায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা জয়নাল আবেদীন জন্টু ও মদীনা ব্রিক ফিল্ডের মালিক নুরুল আবছারের অনুসারীদের মাঝে তুমুল গুলি বিনিময় চলাকালীন তারাবীহর নামায শেষে বাড়ি ফেরার পথে সেই গুলির নির্মম শিকার হন জামিয়া ইসলামিয়া পটিয়া‘র তাকমীল জামায়াতের ছাত্র হাফেজ মাওলানা খালিদ হোসাইন ও চন্দনাইশ বহরমপাড়া মাদরাসার হাফেজ মুহাম্মাদ ইব্রাহিম। হাফেজ মাওলানা খালিদ ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। আর হাফেজ মুহাম্মদ ইব্রাহিম চিকিৎসারত অবস্থায় ১৩ মে ইন্তেকাল করেন বলে জানা যায়।

এধরণের ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম মহানগর।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য