নির্বাচিত হলে মার্কিন দূতাবাস জেরুসালেমেই থাকবে : জো বাইডেন


জাগো প্রহরী : প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে জেরুসালেম থেকে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস সরাবেন না ডেমোক্রেট জো বাইডেন। যখন ইসরাইলের তেল আবিব থেকে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস সরিয়ে জেরুজালেমে স্থানান্তর করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং এর মধ্য দিয়ে জেরুজালেমকে একতরফাভাবে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন, তখন তার এ সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত ছিলেন না জো বাইডেন। কিন্তু আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। সেই নির্বাচনে রিপাবলিকান ডনাল্ড ট্রাম্পের মুখোমুখি হচ্ছেন ডেমোক্রেট দলে প্রার্থী, সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। 

নির্বাচনকে সামনে রেখে তিনি বলেছেন, যদি তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন তাহলে দূতাবাস আবার স্থানান্তর করবেন না।

বুধবার তিনি ম্যাচাচুসেটসের বোস্টনে সমর্থকদের সঙ্গে তহবিল সংগ্রহ সংক্রান্ত এক ভার্চুয়াল বৈঠককালে এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন। তিনি বলেন, ওই দূতাবাস সরানো হবে না। তিনি আরো বলেন, দূতাবাস যে ঘটনার প্রেক্ষিতে সরানো হয়েছে তা হওয়া উচিত ছিল না।

এটা হওয়া উচিত ছিল এমন প্রেক্ষাপটে যা আমাদেরকে শান্তি প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ঐকমত অর্জনে সাহায্য করতো। ২০২০ সালে নির্বাচনী প্রচারণাকালে তিনি এ পর্যন্ত যত গুরুত্বপূর্ণ ও বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়েছেন তার মধ্যে এই ব্যাখ্যাটি ছিল অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ।

যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস সেই ১৯৯৫ সালেই যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জেরুসালেমে সরিয়ে নেয়ার অনুমোদন দেয়। তখন ওই প্রস্তাবের ওপর ভোটে অংশ নিয়েছিলেন জো বাইডেন। তিনি তখন দেলাওয়ার রাজ্যের সিনেটর। কিন্তু উভয় দলের পর্যায়ক্রমিক প্রেসিডেন্টরা দূতাবাসা সরিয়ে নেয়া বিলম্বিত করেন। এর সঙ্গে তারা চলমান শান্তি সমঝোতাকে যুক্ত করেন। বাইডেন বলেন, সেই ধারবাহিকতা থেকে সরে এসেছেন ট্রাম্প। তবে এখন যখন এটা করা হয়ে গেছে,তাই আমি যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসকে আবার তেল আবিবে ফিরিয়ে আনবো না।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য