৫ মে শাপলার শহীদদের রক্তের বিনিময়ে দেশে ইসলাম কায়েম হবে : খেলাফত আন্দোলন


জাগো প্রহরী : বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীরে শরীয়ত মাওলানা আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুর বলেছেন, ৫ মে দিবাগত রাত শাপলা চত্বরে যারা শাহাদাত বরণ করেছেন ও রক্ত দিয়েছেন তারা যুগে যুগে ইসলাম প্রতিষ্ঠার সৈনিকদের প্রেরণার বাতিঘর হিসেবে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন। ঐদিন কেউ রাষ্ট্রক্ষমতা দখল বা কাউকে ক্ষমতা থেকে উৎখাতের জন্য শাপলা চত্তরে আসেননি বরং আল্লাহ ও রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের শানে ধৃষ্টতা প্রদর্শনকারী নাস্তিক্যবাদীদের বিচারের দাবীতে সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা সেখানে সমবেত হয়েছিলেন। সারাদিনের ক্লান্ত-শ্রান্ত ও পিপাসার্ত জনতার উপর মধ্যরাতে সরকারী বাহিনী যে অতর্কিত আক্রমণ চালিয়েছিল তা অত্যন্ত হৃদয়বিদারক। 

মঙ্গলবার (৫মে )রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরস্থ জামিয়া নূরিয়ায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের উদ্যোগে ৫মের হতাহত ও শহীদদের স্মরণে আয়োজিত দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। খেলাফত আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, দফতর সম্পাদক মাওলানা সানাউল্লাহ, কেন্দ্রীয় নেতা মুফতি আ ফ ম আকরাম হুসাইন, মাওলানা ইলিয়াস মাদারীপুরী ও মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী প্রমুখ।

মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শীর্ষ উলামায়ে কেরামের নামে দায়েরকৃত হয়রানীমূলক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা মামলাগুলো প্রত্যাহারের দাবি জানান।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য