বালুচ স্বাধীনতাকামীদের হামলায় মেজরসহ ৭ পাকিস্তানি সেনা নিহত


জাগো প্রহরী : পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর উপর ফের ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে বালুচিস্তানের স্বাধীনতাকামীরা। শুক্রবার দক্ষিণ বালুচিস্তানে ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর এক মেজরসহ অন্তত ৭ সৈন্য নিহত হয়েছেন। এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে ‘বালুচ লিবারেশন আর্মি’।

পাকিস্তানি সেনার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, শুক্রবার ( ৮ মে ) দক্ষিণ বালুচিস্তানের কেচ জেলার ছোট্ট উপত্যকা বুলেদা থেকে ফিরছিলেন ফ্রন্টিয়ার কোরের এক মেজরসহ ৭ জন সেনা সদস্য। সেসময় তাদের গাড়িতে ল্যান্ডমাইন দিয়ে হামলা চালানো হয়। পাকিস্তান-ইরান সীমান্ত থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে এই বিস্ফোরণ ঘটেছে।

তিনি জানান, সন্ত্রাসবাদীদের সম্ভাব্য গতিবিধি দেখতেই মেজরসহ ৭ জনের ওই দলটি বুলেদা উপত্যকায় গিয়েছিল। নিহত মেজরের নাম নাদিম আব্বাস ভাট্টি। তিনি পাঞ্জাব প্রদেশের হাফিজবাদ শহরের বাসিন্দা ছিলেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বালুচিস্তান পোস্ট জানাচ্ছে, স্বাধীনতার জন্য লড়াই করা বালুচ লিবারেশন আর্মি এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

উল্লেখ্য, বালুচিস্তানে ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত চুক্তির ভিত্তিতে চীন-পাকিস্তানের মধ্যে অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে৷ চীনের প্রস্তাবিত ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’ নীতির উপর ভিত্তি করে, তাদের অর্থ সাহায্যেই এই করিডর তৈরি হচ্ছে৷ পাকিস্তানের গোদার পোর্ট থেকে চীনের শিনজিং প্রদেশ পর্যন্ত মোট ২ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ এই পথটি তৈরি করা হচ্ছে৷ এই করিডর নিয়ে প্রথম থেকেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করে আসছেন বালুচিস্তানসহ গিলগিট-বালতিস্তান ও পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের নাগরিকরা৷
সূত্র- হিন্দুস্তান টাইমস, সংবাদ প্রতিদিন।   

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য