ইটের বদলে পাটকেল, পাক-ভারত ‘আবহাওয়া যুদ্ধ’ শুরু



জাগো প্রহরী : রোববার থেকে পাকিস্তান রেডিও ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মির ও লাদাখ অঞ্চলের আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিতে শুরু করায় দক্ষিণ এশিয়ার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশগুটির মধ্যে এবার একটি ‘আবহাওয়া যুদ্ধ’ শুরু হয়ে গেছে। 

ভারত গত শুক্রবার থেকে পাকিস্তান শাসিত গিলগিট-বাল্টিস্তান, মোজ্জাফরাবাদ ও মিরপুর অঞ্চলের আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিতে শুরু করায় ‘ইটের বদলে পাটকেল নীতি’ হিসেবে পাকিস্তানও পাল্টা ব্যবস্থা নেয়।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত প্রচার মাধ্যম - রেডিও পাকিস্তান থেকে শ্রীনগর, পুলওয়ামা ও লাদাখের আবহাওয়ার পূর্বাভাস প্রচার শুরু হয়েছে। 

আবহাওয়া যুদ্ধ

গত সপ্তাহে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ গিলগিট-বাল্টিস্তান, মোজাফ্ফরাবাদ ও মিরপুরকে অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মির সাবডিভিশনের আওতায় নিয়ে আসে। এরপর পাকিস্তান শাসিত কাশ্মির অঞ্চলের আবহাওয়ার পূর্বাভাস প্রচারের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত।

গত মাসের শেষ দিকে পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট গিলগিট-বাল্টিস্তানের এডভোকেট জেনারেলকে গিলগিট-বাল্টিস্তান অর্ডার-২০১৮ সংশোধন এবং একটি কেয়ারটেকার সরকার গঠনের নির্দেশ দিয়ে নির্দেশনা জারি করে। পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের উদ্যোগের জের ধরেই মূলত ভারত এই ‘আবহাওয়া যুদ্ধ’ শুরু করেছে।

সুপ্রিম কোর্টের সাত সদস্যের বেঞ্চ ২০১৮ সালের অর্ডার সংশোধনের জন্য সরকারের আবেদন গ্রহণ করে, যাতে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে সেখানে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠান এবং সে লক্ষ্যে একটি কেয়ারটেকার সরকার গঠন করা যায়।

চলতি বছরের জুনে গিলগিট-বাল্টিস্তান সরকারের মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে এবং এর পর দুই মাসের মধ্যে গিলগিল-বাল্টিস্তান কাউন্সিলের সাধারণ নির্বাচন হতে হবে।

পাকিস্তান ১৯৪৭ সাল থেকে অঞ্চলটি শাসন করে আসলেও এটি এখনো পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে বিরোধের কেন্দ্র হয়ে আছে। পাকিস্তান আনুষ্ঠানিকভাবে অঞ্চলটিকে নিজের ভূখণ্ডের সঙ্গে যুক্ত করেনি। তবে এই অঞ্চলের জনগণ সাংবিধানিক অধিকারসহ পাকিস্তানী নগরিকত্ব লাভের দাবি জানিয়ে আসছে।

সূত্র : দি প্রিন্ট

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য