ইরান সীমান্তে নির্যাতনে নিহত ১৮ আফগানের লাশ উদ্ধার


জাগো প্রহরী : গত সপ্তাহে ইরানি সীমান্তরক্ষী বাহিনীর তাড়া খেয়ে নদীতে ঝাপ দিতে বাধ্য হওয়ার আগে মারধর ও নির্যাতনের শিকার ১৮ অভিবাসীদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এক সিনিয়র আফগান কর্মকর্তা শুক্রবার ( ৮ মে ) এ কথা জানিয়েছেন।

হেরত প্রদেশ থেকে অবৈধভাবে প্রতিবেশী ইরানে প্রবেশের চেষ্টাকালে অভিবাসীরা ডুবে গেছে বলে যে দাবি করা হচ্ছে তা তদন্ত করছে আফগান কর্তৃপক্ষ। 

ইরানের সীমান্তবর্তী গুলরান জেলার গভর্নর আবদুল গনি নুরি বলেছেন, ৫৫ জন আফগান অভিবাসীর মধ্যে যারা নদীতে ঝাপ দিতে বাধ্য হয়েছিল, তাদের মধ্য থেকে আমরা এখন পর্যন্ত ১৮টি লাশ উদ্ধার করেছি।

তিনি বলেন, ৬ অভিবাসী এখনও নিখোঁজ। তবে অন্যরা বেঁচে আছেন। লাশগুলোর শরীরে “মারধর ও নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে।

নুরি বলেন, বেঁচে থাকা ব্যক্তিদের বিবরণ এবং লাশগুলোর গায়ের চিহ্ন থেকে বুঝা যায় ইরানের সীমান্ত রক্ষীরা প্রথমে তাদেরকে বৈদ্যুতিক তার দিয়ে পিটিয়েছে এবং পরে বন্দুকের নলের মুখে নদীতে ঝাঁপ দিতে বাধ্য করে। 

ইরানি কর্তৃপক্ষ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে যে ঘটনাটি আফগানিস্তানের অভ্যন্তরে ঘটেছে।

ইরানকে প্রায়ই হুমকি দেয়া যুক্তরাষ্ট্র বলছে যে তারা এই ঘটনা তদন্তে কাবুল প্রশাসনকে সহায়তা করবে। 

সূত্র :এএফপি

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য