আফগান অভিবাসীদের নদীতে ছুঁড়ে ফেলছে ইরানের সীমান্তরক্ষীরা


জাগো প্রহরী : ইরানের সীমান্তরক্ষী বাহিনী আফগানিস্তান থেকে যাওয়া অভিবাসীদের নির্যাতনের পর নদীতে ছুড়ে ফেলেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রোববার তদন্ত শুরু করেছে আফগান কর্মকর্তারা।

কাবুলের প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের এক কর্মকর্তা জানান, শনিবার সীমান্তবর্তী হেরাত প্রদেশ দিয়ে ইরানে প্রবেশের চেষ্টা করছিল অন্তত ৭০ জন আফগান। এসময় ইরানের সীমান্তরক্ষী বাহিনী তাদেরকে বেদম প্রহার করে এবং হারিরাদ নদীতে ঝাপ দিতে বাধ্য করে। এ ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে আফগান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

আফগানিস্তান, ইরান ও তুর্কমেনিস্তানের অববাহিকায় অবস্থিত হারিরাদ নদী।

হেরাত জেলা হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তারা আফগান অভিবাসীদের মৃতদেহ পেয়েছেন। এদের মধ্যে কয়েক জন ডুবে মারা গেছে।

হাসপাতালের প্রধান আরেফ জালালি বলেন, ‘এ পর্যন্ত পাঁচটি মৃতদেহ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এটা স্পষ্ট এদের মধ্যে চার জন পানিতে ডুবে মারা গেছে।’

হেরাতে ইরানি কনস্যুলেট অবশ্য এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

শনিবার পহেলা মে এক বিবৃতিতে  কনস্যুলেট বলেছে, ‘ইরানি সীমান্তরক্ষী বাহিনী কোনো আফগান নাগরিককে আটক করেনি।’

ইরানি সীমান্তরক্ষীদের হাতে প্রথমে আটক হওয়া আফগান নাগরিক নুর মোহাম্মদ জানান, তারা কাজের খোঁজে হেরাতের গুলরান জেলা থেকে ইরানে প্রবেশ করছিলেন।

তিনি বলেন, ‘নির্যাতনের পর ইরানি সেনারা আমাদের সবাইকে হারিরাদ নদীতে ছুড়ে ফেলে।’

সূত্র : রয়টার্স

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য