পানিতে দাঁড়িয়েই ঈদের নামাজ আদায়


জাগো প্রহরী : নিজেদের সুরক্ষা দিতে স্থানীয় উদ্যোগেই নির্মাণকাজ চলছে খুলনার কয়রা বেড়িবাঁধের। এই বাঁধ নির্মাণ হয়ে গেলে লবণাক্ত পানির কবল থেকে মুক্তি মিলবে কয়রাবাসীর।

তাই আজ সোমবার (২৫ মে) পানির মধ্যে দাঁড়িয়েই ঈদের নামাজ আদায় করেন কয়রার মানুষ। নামাজ শেষ করেই বাঁধ মেরামতের কাজে নেমে পড়েন তারা।


বাঁধ নির্মাণের কাজে নিয়োজিত স্থানীয় সংগঠন কয়রা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইমতিয়াজ উদ্দিন বলেন, বাঁধ মেরামতের কাজ শেষ না করে কয়রার মানুষ ঘরে ফিরবেন না। লবণাক্ত  পানির মধ্যে বসবাস করা কঠিন। কয়রার মানুষ এখন ত্রাণ চায় না, বাঁধ চায়।


দক্ষিণ বেদকাশীর বাসিন্দা আবু সাঈদ খান বলেন, আইলার পর মানুষ বাঁধের ওপর আশ্রয় নিতে পেরেছিল। কিন্তু আম্পানে বাঁধও ক্ষতিগ্রস্ত হলো, তাই ন্যুনতম আশ্রয়স্থলও নেই।

এ বিষয়ে কয়রা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিমুল কুমার সাহা বলেন, কয়রার মানুষ এখন স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে বাঁধ নির্মাণ করছেন। নির্মিতব্য বাঁধের ওপরেই তারা ঈদের নামাজ আদায় করে আবার কাজে নেমে পড়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ২৫ মে আইলায় সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসের আঘাতে কয়রার পাউবোর বেড়িবাঁধের ২৭টি পয়েন্ট ভেঙে লবণাক্ত পানিতে তলিয়ে যায়। আর সম্প্রতি আম্পানের আঘাতে ভেঙেছে ২০টি পয়েন্ট।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য