বাংলাদেশ প্রতিদিন কর্তৃপক্ষ মিথ্যাচারের জন্য ক্ষমা না চাইলে মানহানি মামলা ও আন্দোলন



জাগো প্রহরী : হেফাজতে ইসলাম বাংলদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী আজ বুধবার ( ১৩ মে ) এক বিবৄতিতে বলেছেন,সাম্প্রতিকালে কতিপয় অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়া নানা কল্পকাহিনী তৈরি করে,মিথ্যা ও ভিত্তিহীন রিপোর্ট সাজিয়ে দেশের শীর্ষ আলেম, হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব,প্রখ্যাত শায়খুল হাদীস, দারুল উলুম হাটহাজারীর মুঈনে মুহতামিম আল্লামা শায়খ জুনাইদ বাবুনগরীকে বিতর্কিত ও প্রশ্নবিদ্ধ করার গভীর ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে।

বস্তুনিষ্ঠ রিপোর্ট করে সংবাদ প্রচার করা একজন সাংবাদিকের নৈতিক দায়িত্ব। অথচ আমরা লক্ষ্য করছি যে,কতিপয় সংবাদকর্মী উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে একটি কুচক্রীমহলের ইন্দনে কোন ধরণের সত্যতা যাছাই না করে হেফাজত মহাসচিবের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক রিপোর্ট করে গোলা পানিতে মাছ শিকার করার চক্রান্ত করে যাচ্ছে।

মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী আরো বলেন,আজ ১৩ মে বুধবার বাংলাদেশ প্রতিদিনের অনলাইন সংস্করণে “সাঈদীর পুত্রের সাথে বৈঠক করা বিতর্কিত সেই রকি বড়ুয়া গ্রেফতার” শীর্ষক খবরে আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরীর সাথে রুদ্ধদ্বার বৈঠকের যে অংশ জড়িয়ে দিয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ভিত্তহীন ও বিভ্রান্তকর। আমরা এই মিথ্যা রিপোর্টের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। মাসুদ সঈদী নামে কারো সাথে আল্লামা বাবুনগরীর পরিচয়ও নেই। রকি বড়ুয়া নামক একজন র’এর এজেন্টের সাথে দেশের সর্বজন শ্রদ্বেয় আপোষহীন সংগ্রামী মুরব্বি আলেম আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরীকে জড়ানো চরম অন্যায় ও মানহানিকর। তিনি বলেন, এই মিথ্যা রিপোর্ট করে আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরীকে বিতর্কিত করার চক্রান্ত করায় অবিলম্বে বাংলাদেশ প্রতিদিন কর্তৄপক্ষকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিরুদ্ধে মানহানি মামলাসহ দেশের তৌহদী জনতা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবে।

জাগো প্রহরী/ফাইয়াজ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য