হাসপাতালের ওয়াশরুমে আত্মহত্যা করলেন করোনা রোগী


জাগো প্রহরী ডেস্ক :

প্রাণঘাতী মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর শুনে হাসপাতালেই নিজের গলার নলি কেটে আত্মহত্যা করলেন এক যুবক।

শনিবার ( ১১ এপ্রিল ) ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মহারাষ্ট্রের অকোলার একটি স্থানীয় হাসপাতালে।

আত্মঘাতী ওই যুবকের বাড়ি আসামে। তার বয়স আনুমানিক তিরিশ বছর।

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

খবরে বলা হয়, গত মাসে দিল্লির নিজামউদ্দিনে তাবলিগি মারকাজের জামাতে যোগ দিয়েছিলেন ওই যুবক। সেখান থেকে ফিরে বেশ কয়েকজনের সঙ্গে গতমাসে মহারাষ্ট্রের অকোলায় গিয়ে ওঠেন।

সম্প্রতি করোনার লক্ষণ দেখা দিলে নিজেই স্থানীয় হাসপাতালে যান। গত কয়েক দিন ধরে ওই হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তিছিলেন ওই যুবক।

শুক্রবার সন্ধ্যায় তার নমুনার রিপোর্ট এলে দেখে যায়, তিনি কোভিড -১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত। এরপির শনিবার সকালে আত্মহত্যা করেন তিনি।

হাসপাতাল সূত্রের বরাতে আনন্দবাজার আরও জানায়, আইসোলেশন ওয়ার্ডের শৌচাগারে ব্লেড দিয়ে নিজের গলার নলি কেটে আত্মঘাতী হন ওই যুবক। এ ঘটনায় পুলিশ দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে।

জাগো প্রহরী/গালিব

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ